fbpx
শনিবার, ২২ জানুয়ারী ২০২২, ০৩:০২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
শিরোনাম
হাততালি দেয়া যাবে তবে চিৎকার করা যাবে না! সাদুল্লাপুরে চাকুরি নিয়ে দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে নববধূকে ধর্ষণ ১ কোটি দর্শক একদিনে দেখলেন নুসরাতের সেই ভিডিও সৌদি নারী একসঙ্গে ১০ সন্তানের জন্ম দিলেন শীতের ঠাণ্ডাও শরীরের জন্য উপকারী “রাষ্ট্রপতি পুলিশ পদক” পেলেন গাইবান্ধার পুলিশ সুপার তৌহিদুল ইসলাম সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা সাদুল্লাপুরে জোড়পৃর্বক জমি দখল নিতে মামলা অপপ্রচার ও হুমকী প্রদর্শন ক্যাপ্টেন পরিচয়ে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ায় আব্দুর রাজ্জাক নামে ভূয়া ক্যাপ্টেন আটক মুজিব জন্মশতবর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে গাইবান্ধা থিয়েটারের নাটক পরিবেশিত

ইউরোপের সেরা চেলসি

অনলাইন ডেস্ক / ১২৫ Time View
Update : রবিবার, ৩০ মে, ২০২১, ৯:৫৩ পূর্বাহ্ন

ম্যানচেস্টার সিটিকে হারিয়ে ইউরোপ সেরার আসনে বসল টমাস টুখেলের চেলসি। শনিবার অল ইংলিশ ফাইনালে দাপুটে ফুটবল খেলে ১-০ গোলে জিতেছে চেলসি। এর আগে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে কখনোই জালের দেখা পাননি।

তবে কাই হাভার্টজ একেবারে মোক্ষম সময়ে বাজিমাত করলেন। পর্তুগালের পোর্তোর এস্তাদিও দো দ্রাগাওয়ে দলকে উপহার দিলেন সবচেয়ে বড় জয়ের উপলক্ষ।

মৌসুমের শুরুতে বায়ার লেভারকুসেনকে প্রায় ৭৫ মিলিয়ন পাউন্ড ট্রান্সফার-ফি দিয়ে আগের কোচ ফ্রাঙ্ক ল্যাম্পার্ড হ্যাভার্তজকে দলে নেওয়ায় হতবাক হয়েছিলেন অনেকেই।

এতো অর্থে এই মানের খেলোয়াড়কে নেওয়ার কারণ খুঁজে পাননি তারা।

অথচ জার্মানির ২১ বছর বয়সী এই ফুটবলারই যখন ফাইনালে পার্থক্য গড়ে দিল তখন নিশ্চয় সবার অলক্ষ্যে মুচকি হাসছিলেন ল্যাম্পার্ড।

চেলসির রক্ষণভাগ ছিল দুর্ভেদ্য। রায়াদ মাহরেজ, কেভিন ডি ব্রুয়েনরা কিংবা পরিবর্তিত হিসেবে মাঠে নামা গ্যাব্রিয়েল হেসুস, সার্জিও আগুয়েরোরা রক্ষণের দেয়াল ভাঙতেই পারেননি।

আর উল্টো দিকে ম্যানসিটির রক্ষণ ম্যাচের ৩৯ মিনিটে আরো দুর্বল হয়ে যায়।

দলটির সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য ডিফেন্ডার থিয়াগো সিলভা চোট পেয়ে মাঠে ছাড়েন। তার অনুপস্থিতিতে সুযোগ কাজে লাগায় চেলসি।

৪২তম মিনিটে গোলরক্ষক মঁদির বাড়ানো বল মাঝমাঠে পেয়ে সুযোগ বুঝে হাভার্টজের উদ্দেশে থ্রু পাস বাড়ান ম্যাসন মাউন্ট। এদিকে পোস্ট ছেড়ে বক্সের বাইরে বেরিয়ে যান এদেরসন, ওয়ান-অন-ওয়ানে দারুণ এক টোকায় তাকে ফাঁকি দিয়ে ফাঁকা জালে বল পাঠান হাভার্টজ।

ম্যাচের বাকি সময়টা থিয়াগো সিলভার অভাব বুঝতেই দিলেন না সিজার অ্যাজপিলিকুয়েতা, আন্দ্রেস ক্রিস্টেনসেনরা।

নিজেদের জালে আর কোনো বল জড়াতে দেননি। তাতে লাভ হয়নি। কারণ চেলসির দুর্ভেদ্য রক্ষণভাগকে অতিক্রম করে সমতায় ফেরাতে পারেননি সিটির স্ট্রাইকাররা।

গোল পেতে মরিয়া ম্যানসিটি ৭৭ মিনিটে আগুয়েরো মাঠে নামায়। তিনিও ব্যর্থ হয়েছেন।

এর আগে ৭২ মিনিটে চেলসির হয়ে গোলের ব্যবধান বাড়িয়ে নেওয়ার সুবর্ণ সুযোগ হাতছাড়া করেন বদলি হিসেবে নামাব ক্রিশ্চিয়ান পুলিসিচ।

গোল না পেলেও মাঠে দুর্দান্ত খেলেছেন এনগোলো কন্তে। সারা মাঠজুড়ে খেলে ম্যানসিটিকে নাকানিচুবানি খাইয়ে ছেড়েছেন।

৯০তম মিনিটে দুর্দান্ত এক শট নেন মাহরেজ; ভাগ্য সহায় না হওয়ায় অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। যোগ করা অতিরিক্ত ৭ মিনিটেও সমতায় ফিরতে পারেনি সিটি।

শেষ পর্যন্ত হ্যাভার্তজের ওই গোলেই নির্ধারণ হয় শিরোপা। ইউরোপ-সেরার মুকুট লাভ করে চেলসি।

শেষ পর্যন্ত ওই গোলেই নির্ধারণ হয় শিরোপা। ইউরোপ-সেরার মুকুট লাভ করে চেলসি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: