বুধবার, ০৪ অগাস্ট ২০২১, ০২:২৪ অপরাহ্ন
নোটিশ

জেলা/উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ : সাপ্তাহিক গাইবান্ধার বুকে প্রিন্ট ও অনলাইন পত্রিকার জন্য গাইবান্ধা  জেলার বিভিন্ন উপজেলাসহ দেশের বিভিন্ন জেলা , উপজেলা, থানা, বিশ্ববিদ্যালয় এবং বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থান/এলাকায় প্রনিতিধি নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা প্রয়োজনীয় কাগজপত্র পাসপোর্ট সাইজের এক কপি ছবিসহ সরাসরি অথবা ডাকযোগে সম্পাদক বরাবর আবেদন করুন

প্রকাশক সম্পাদক, সাপ্তাহিক গাইবান্ধার বুকে , গোডাউন রোড, কাঠপট্টী, গাইবান্ধা। ফোন: : ০১৭১৫-৪৬৪৭৪৪, ০১৭১৩-৫৪৮৮৯৮,

সুন্দরগঞ্জের চন্ডিপুর ইউনিয়নের আশ্রয় মিলছেনা নদী ভাঙ্গন কবলিত মানুষদের

স্টাফ রিপোর্টার / ৯২ Time View
Update : রবিবার, ৪ জুলাই, ২০২১, ৯:৪৩ অপরাহ্ন

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার চন্ডিপুর ইউনিয়নের আশ্রয় মিলছেনা বহুরূপী তিস্তা নদীর ভাঙ্গন কবলিত ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারগুলোর । পর্যাপ্ত খাসজমির অভাবে বঞ্চিত হচ্ছে সরকারের আশ্রয়ন প্রকল্পের সুবিধা থেকে ।

ইউপি সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, প্রমত্তা তিস্তা নদীর তীরে গড়ে ওঠা সুন্দরগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী অঞ্চল ১৪ নং চন্ডিপুর ইউনিয়ন । ৯টি ওয়ার্ড মিলে এর আয়তন প্রায় ২১.৮৫ কিলোমিটার । লোক সংখ্যা ৩৬ হাজার ২০০ জন । কালের পরিক্রমায় প্রতিবছরের নদীভাঙ্গনে ০৯ টি ওয়ার্ডের মধ্যে ০৭ টি ওয়ার্ডের অস্তিত্ব প্রায় বিলীনের পথে । ভাঙ্গন কবলিত অসহায় লোকদের ভূমিহীন ও গৃহহীন হয়ে বিভিন্ন এলাকায় আশ্রয় নিয়েছে । অনেকে ইউনিয়নের ৮ কিলোমিটার রাস্তার দু’ধারে আশ্রয় স্থল গড়ে পরিবার-পরিজন নিয়ে অস্থায়ীভাবে বসবাস করছে ।

বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের আওতায় ভাঙ্গন রোধে জিও ব্যাগ ফেলানো হলেও থামছে না নদীর ভাঙ্গা গড়ার খেলা । এ খেলায় নিঃস্ব অসহায় গৃহহীন মানুষগুলোর স্থায়ীভাবে বসবাস করুণ আকুতি আকাশ-বাতাসকে যেন ভারী করে তুলছে । এর উপরে বাঁধের জায়গায় ছেড়ে দিতে পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষের চাপ অপরদিকে হাতে নেই অর্থকরী সব মিলে বিভীষিকাময় জীবন কাটাতে বাধ্য হচ্ছে এই অসহায় মানুষগুলো ।

এক সাক্ষাৎকারে ইউপি চেয়ারম্যান ফুল মিয়া জানান মুজিব বর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সারাদেশ সারাদেশ ভূমিহীন পরিবারের মধ্যে জমির মালিকানা সহ সেমিপাকা ঘর উপহার দিচ্ছেন । পরিতাপের বিষয় সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ইউনিয়নগুলো এ প্রকল্পের সুবিধা ভোগ করলেও ব্যতিক্রম শুধু চন্ডিপুর ইউনিয়ন । এ ইউনিয়নের প্রধান সমস্যা পর্যাপ্ত খাস জমি নেই যেটুকু রয়েছে তার উপর রয়েছে মামলা-মোকদ্দমা সহ বিভিন্ন ধরনের জটিলতা ।

মুজিববর্ষে বাংলাদেশের একজন মানুষ গৃহহীন থাকবে না প্রধানমন্ত্রীর এমন সিদ্ধান্তের আলোকে এ ইউনিয়নের ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবার গুলোকে আশ্রয়ন প্রকল্পের আওতায় এনে অসহায় মানুষদের মুখে হাসি ফুটানোর হোক এমন প্রত্যাশা ইউপি চেয়ারম্যানসহ ইউনিয়নের সর্বস্তরে মানুষের।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: