শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:২৬ পূর্বাহ্ন
নোটিশ

জেলা/উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ : সাপ্তাহিক গাইবান্ধার বুকে প্রিন্ট ও অনলাইন পত্রিকার জন্য গাইবান্ধা  জেলার বিভিন্ন উপজেলাসহ দেশের বিভিন্ন জেলা , উপজেলা, থানা, বিশ্ববিদ্যালয় এবং বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থান/এলাকায় প্রনিতিধি নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা প্রয়োজনীয় কাগজপত্র পাসপোর্ট সাইজের এক কপি ছবিসহ সরাসরি অথবা ডাকযোগে সম্পাদক বরাবর আবেদন করুন

প্রকাশক সম্পাদক, সাপ্তাহিক গাইবান্ধার বুকে , গোডাউন রোড, কাঠপট্টী, গাইবান্ধা। ফোন: : ০১৭১৫-৪৬৪৭৪৪, ০১৭১৩-৫৪৮৮৯৮,

সুন্দরগঞ্জে পুলিশের সাথে মাদকসেবীদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া

স্টাফ রিপোর্টার / ৩৪১ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ১২ আগস্ট, ২০২১, ৬:১৪ অপরাহ্ন

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলা বামনডাঙ্গা আব্দুল হক কলেজ মাঠে বুধবার রাত ৮টার দিকে পুলিশের সাথে একদল মাদকসেবীর ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনায় ৩ জনকে আটক করা হয়েছে। তারা যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবকলীগের সদস্য বলে জানা গেছে। ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনায় ৫ জন আহত হয়েছে। আটককৃতরা হলো বামনডাঙ্গা মনমথ গ্রামের মিলু রাম রায়ের ছেলে যুবলীগ কর্মী পার্থ রাম রায়, ফনি সরকারের ছেলে ছাত্রলীগ কর্মী রিপন সরকার এবং সিরাজুল ইসলামের ছেলে স্বেচ্ছাসেবকলীগ কর্মী রাতুল ইসলাম।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ডিবি পুলিশ বামনডাঙ্গা আব্দুল কলেজ মাঠে অভিযান চালিয়ে মাদক সেবন অবস্থায় পার্থ রাম রায়, রিপন সরকার ও রাতুল সরকারকে আটক করে পিক-আপ ভ্যানে ওঠায়। এ সময় কলেজ মাঠে থাকা অন্যান্য মাদকসেবীরা পুলিশের পিক-আপ ভ্যান থেকে আটককৃত মাদকসেবীদের ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। এতে পুলিশ ও মাদকসেবীদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে বামনডাঙ্গা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ শফিকুজ্জামান সরকার অতিরিক্ত পুলিশ সদস্যদের নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে আটককৃতদের তদন্ত কেন্দ্রে নিয়ে আসে। এরই মধ্যে মাদকসেবীরা বামনডাঙ্গা শিববাড়ি মোড়ে আবারও পুলিশের পিক-আপ ভ্যানের সামনে ব্যারিকেড দিয়ে আটককৃতদের ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে।

এ ধরণের খবর পেয়ে সুন্দরগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) বুলবুল ইসলাম থানা থেকে অতিরিক্ত পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে হাজির হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন। বর্তমানে বামনডাঙ্গায় অতিরিক্ত পুলিশ টহল দিচ্ছে। প্রত্যক্ষদর্শী আরমান আলী জানান, পুলিশ যখন আসামি নিয়ে কলেজ মাঠ থেকে বের হয়ে প্রধান সড়কে ওঠে তখনেই একদল যুকব আটককৃতদের পুলিশের ভ্যান থেকে ছিনিয়ে নেয়ার জন্য ধস্তাধস্তি করে। এ সময় উভয়ের মধ্যে হাতাহাতি হয়। তিনি বলেন, সংঘর্ষে উভয় পক্ষের বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে।

আহত বাপ্পী রাম রায়, স্বপন রাম রায়, রাসেল মিয়া রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। পরে রাত ১২টার দিকে উপজেলা আওয়ামীলীগ ও তার অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের সাথে পুলিশের বৈঠক হয়। সুন্দরগঞ্জ থানার ওসি আব্দুল্লাহিল জামান জানান, উভয় পক্ষের আলোচনা সাপেক্ষে মুচলেকা নিয়ে আটক ৩জনকে ছেড়ে দেয়া হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: