শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:২৯ পূর্বাহ্ন
নোটিশ

জেলা/উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ : সাপ্তাহিক গাইবান্ধার বুকে প্রিন্ট ও অনলাইন পত্রিকার জন্য গাইবান্ধা  জেলার বিভিন্ন উপজেলাসহ দেশের বিভিন্ন জেলা , উপজেলা, থানা, বিশ্ববিদ্যালয় এবং বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থান/এলাকায় প্রনিতিধি নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা প্রয়োজনীয় কাগজপত্র পাসপোর্ট সাইজের এক কপি ছবিসহ সরাসরি অথবা ডাকযোগে সম্পাদক বরাবর আবেদন করুন

প্রকাশক সম্পাদক, সাপ্তাহিক গাইবান্ধার বুকে , গোডাউন রোড, কাঠপট্টী, গাইবান্ধা। ফোন: : ০১৭১৫-৪৬৪৭৪৪, ০১৭১৩-৫৪৮৮৯৮,

গোবিন্দগঞ্জ বাগদা ফর্মে দেশের দশম ইপিজেড

স্টাফ রিপোর্টার / ৯৭ Time View
Update : শুক্রবার, ২৭ আগস্ট, ২০২১, ১:০৯ অপরাহ্ন

দুই লাখ মানুষের কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ এলাকা (ইপিজেড) স্থাপনের প্রক্রিয়া শুরু করতে যাচ্ছে সরকার।
প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় গোবিন্দগঞ্জে অবস্থিত রংপুর চিনিকলের সাহেবগঞ্জ বাগদা ফার্মের ১ হাজার ৮৪২ একর জমির ওপর বাংলাদেশ রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চল কর্তৃপক্ষ (বেপজা) আগামী বছরের জানুয়ারিতে এই ইপিজেড স্থাপনের কাজ শুরু করবে।
মঙ্গলবার গাইবান্ধা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে বেপজার নির্বাহী চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মো. নজরুল ইসলাম বলেন, দেশে ইতোমধ্যে ৮টি ইপিজেড স্থাপন করা হয়েছে। চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে নবম ইপিজেডের স্থাপনের কাজ শুরু হয়েছে। গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে স্থাপিত ইপিজেড হবে দেশের দশম ইপিজেড।
তিনি বলেন, রংপুর ও বগুড়ার মধ্যবর্তী গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে ইপিজেড স্থাপন হলে এই অঞ্চলের বিশাল জনগোষ্ঠীর জীবনমানের আমূল পরিবর্তন ঘটবে। এই ইপিজেডে দুই লাখ মানুষের কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সন্তানদের লেখাপড়া, স্বাস্থ্যসেবা থেকে শুরু করে সব ধরণের আধুনিক সুযোগ সুবিধা থাকবে এবং আন্তর্জাতিক মানের কর্ম-পরিবেশ নিশ্চিত করা হবে এই ইপিজেডে।
বেপজার চেয়ারম্যান আরও বলেন, নতুন এই ইপিজেডের দাপ্তরিক প্রায় সকল কার্যক্রম এগিয়ে গেছে। আগামী বছরের জানুয়ারিতে এ ইপিজেডের কার্যক্রম শুরু করা হবে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী এই প্রকল্প বাস্তবায়নে যদি কেউ ক্ষতিগ্রস্ত হয়, তাদের পুনর্বাসন ও অগ্রাধিকার ভিত্তিতে এ প্রকল্পে তাদের কর্মসংস্থান নিশ্চিত করা হবে।’
এদিন গোবিন্দগঞ্জের বাগদা ফার্মে প্রস্তাবিত ইপিজেড এলাকা পরিদর্শন করেন বেপজার চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলাম।
সরাসরি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নিয়ন্ত্রণাধীন বেপজা ১৯৮০ সালে গঠনের পর শুরু হয় ইপিজেড প্রতিষ্ঠার কাজ। চট্টগ্রাম ইপিজেড দিয়েই সেটির আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হয়। চট্টগ্রাম ইপিজেড প্রতিষ্ঠার ১০ বছর পর ১৯৯৩ সালে এসে গড়ে ওঠে ঢাকা ইপিজেড। এরপর পর্যায়ক্রমে ১৯৯৯ সালে মংলা, ২০০০ সালে কুমিল্লা, ২০০১ সালে ঈশ্বরদী ও নীলফামারীতে উত্তরা, ২০০৬ সালে নারায়ণগঞ্জে আদমজী ও চট্টগ্রামে কর্ণফুলী ইপিজেডের যাত্রা শুরু হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: