মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:২৭ অপরাহ্ন

সুন্দরগঞ্জে সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে শঙ্কায় স্বতন্ত্র প্রার্থীরা

Reporter Name / ৭৮ Time View
Update : মঙ্গলবার, ২৩ নভেম্বর, ২০২১, ৫:৫৩ অপরাহ্ন

ঘোষিত তফশিল মোতাবেক আগামি ২৮ নভেম্বর গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নের নির্বাচন। নির্বাচনের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে ততই বিভিন্ন প্রার্থী এবং প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে প্রতিহিংসার বহিঃপ্রকার ঘটছে। অবাধ, নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীরা। উপজেলার ১৩ ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে ফিরে প্রার্থী এবং ভোটারদের সাথে কথাবার্তা বলে জানাগেছে সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে শংঙ্কায় রয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থীরা। শান্তিরাম ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী এবিএম মিজানুর রহমান খোকন জানান, নিরপেক্ষ এবং সুষ্ঠু নির্বাচন হলে তিনি নির্বাচিত হবেন ইনশা আল্লাহ। তার দাবি বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের প্রার্থীরা তার সমর্থক এবং কর্মী বাহিনীকে ভয়ভীতিসহ শঙ্কা দেখিয়ে আসছে।

উপজেলার রামজীবন ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী শামসুল হুদা জানান, ভোটারদের ভোট কেন্দ্রে পৌচ্ছাসহ ভোট প্রয়োগ এবং ভোট গনণা পর্য়ন্ত সুষ্ঠু নিরপেক্ষ হলে তিনি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবেন। তার দাবি বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা-কর্মীরা নির্বাচন সুষ্ঠু হতে দেবে না। তিনি আরও আমরা স্বতন্ত্র প্রার্থীরা শঙ্কায় রয়েছি। উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ও রিটানিং অফিসার ওয়ালিফ মন্ডল জানান, গণতান্ত্রিক উপায়ে অবাধ, নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন সম্পন্ন হবে, এতে সন্দেহের কোন অবকাশ নাই। তিনি জোর দাবি করে জানান, শতভাগ স্বচ্ছ নির্বাচন হবে।

উপজেলা নির্বাচন অফিসার সেকেন্দার আলী জানান, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের কোন বিকল্প নেই। যে যাই বলুক না কেন নির্বাচন শতভাগ সুষ্ঠু হবে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আল মারুফ জানান, ছয় স্তরের নিরাপত্তা বলয়ের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচন নিয়ে শঙ্কার কোন কারন নাই। তিনি বলেন প্রতিটি ইউনিয়নে একজন করে নিবার্হী ম্যাজিষ্ট্রেট, বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশ, গ্রাম পুলিশ,আনছারসহ বিভিন্ন গয়েন্দা সংস্থা নির্বাচনের দায়িত্বে নিয়োজিত থাকবে৷উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, ১৩টি ইউনিয়নের ১২৬টি ভোট কেন্দ্রে ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হবে। ১৩টি ইউনিয়নের মোট ভোটার সংখ্য ৩ লাখ ১০ হাজার ৩০৩ জন। এর মধ্যে পুরুষ ১ লাখ ৫২ হাজার ৮৪৩ জন এবং নারী ১ লাখ ৫৭ হাজার ৪৬০ জন। সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন সম্পন্ন করার জন্য ইতিমধ্যে ১২৬ জন প্রিজাইডিং অফিসার, ৮৮২ জন সহকারি প্রিজাইডিং অফিসার ও ১ হাজার ৭৮৪ জন পোলিং অফিসার নিয়োগ দেয়া হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: