শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১০:৩৯ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি :

জেলা/উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ : সাপ্তাহিক গাইবান্ধার বুকে পত্রিকার জন্য গাইবান্ধা জেলার বিভিন্ন উপজেলাসহ দেশের বিভিন্ন জেলা, উপজেলা, থানা, বিশ্ববিদ্যালয় এবং বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থান/এলাকায় প্রনিতিধি নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও পাসপোর্ট সাইজের এক কপি ছবিসহ সরাসরি অথবা ডাকযোগে সম্পাদক বরাবর আবেদন করুন।প্রকাশক ও সম্পাদক, সাপ্তাহিক গাইবান্ধার বুকে , গোডাউন রোড, কাঠপট্টী, গাইবান্ধা। ফোন: : ০১৭১৫-৪৬৪৭৪৪, ০১৭১৩-৫৪৮৮৯৮

গাইবান্ধায় বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধ হুমকির মুখে

স্টাফ রিপোর্টার / ৩২ বার পঠিত
প্রকাশের সময় : শনিবার, ২১ জানুয়ারী, ২০২৩, ৬:২০ অপরাহ্ন

গাইবান্ধা সদর উপজেলার খোলাহাটি ইউনিয়নের রেলওয়ে ভেড়ামারা ব্রীজের পূর্ব পাশে ঘাঘট নদীর পাড়ে শশ্মানঘাট এলাকায় সরকারি খাস জমিতে প্রায় এক মাস ধরে অবৈধভাবে মাটি কাটার মহোৎসব চলছে। প্রতিদিন ১০ থেকে ১২টি ট্রাক্টরে ভরে সারাদিন ধরে মাটি কেটে ইটভাটাসহ বিভিন্ন স্থানে ব্যবসার উদ্দেশ্যে তা নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। স্থানীয় প্রভাবশালী মোস্তাফিজুর রহমান ও চান মিয়া প্রকাশ্যে এভাবে মাটি কেটে নিয়ে গেলেও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা কোন ভুমিকা রাখছেন না।

অভিযোগ রয়েছে, জনপ্রতিনিধিদের ম্যানেজ করে এইসব মাটি কেটে অন্যত্র নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। এতে করে মাটি ব্যবসায়িরা লক্ষ লক্ষ টাকা অবৈধভাবে হাতিয়ে নিচ্ছে। অপরদিকে এভাবে মাটি কেটে নিয়ে যাওয়ায় নদীর পাড় ও শশ্মানের ঘাটের মারাত্মক ক্ষতি হচ্ছে। এরপর প্রভাবশালী মাটি ব্যবসায়িদের কেউ বাধা দিতে সাহস পাচ্ছে না। এভাবে মাটি কাটার ফলে পার্শ্ববর্তী বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধ, শশ্মানঘাট ও নদীর পাড় হুমকির মুখে পড়েছে। শুধু তাই নয়, ট্রাক্টরের চলাচলের কারণে বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধটি মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। ধুলায় ধুষরিত হওয়ায় পথচারিরা চলাচল করতে পারছে না।

এব্যাপারে গাইবান্ধা সদর উপজেলা ভুমি কর্মকর্তা (এসি ল্যান্ড) রেজাউল করিম জানান, শনিবার বিকেলে খবর পেয়েছি এবং দ্রুত মাটি কাটা বন্ধের ব্যবস্থা নিচ্ছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সব খবর...
এক ক্লিকে বিভাগের খবর